"অবশেষে তোমাকে পাওয়া "ধারাবাহিক গল্প"

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(ধামাকা পর্ব) #পর্ব_বিশ

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(ধামাকা পর্ব) #পর্ব_বিশ #তারা ইসলাম রানা আজকে যে নূরের সাথে ছেলেটা ছিলো সেটাই কি আহনাফ সওদাগর।যে নূর’কে বার বার বিরক্ত করে? “রানা বললো- জ্বী স্যার আজকে যে ছেলেটার সাথে ভাবি আই-সক্রিম খাচ্ছিলো সেটাই আহনাফ সওদাগর। ওদের বাড়িতেই ভাবি ভাড়াটে হিসেবে থাকছেন। “রুদ্র চোখ-মুখ শক্ত করে বললো- ঠিক আছে!তুই সব-সময় নূরকে চোখে চোখে রাখিস।আর ওই ছেলেটার […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_উনিশ

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_উনিশ #তারা ইসলাম মারিয়া বিষন্ন মনে জানালে দিয়ে আকাশ দেখতে ব্যস্ত।তার আজ খুব মন খারাপ”তার এইরকম অবস্থায় তার পাশে কেউ নেই”না নেই তার হাসবেন্ড আমান”আর না আছে প্রিয় বান্ধবি নূর।তার নূরের প্রতি প্রচুর অভিমান হলো কারণ সে কেমন জানি বদলে গেলো হুট করে। “মারিয়া মনে মনে ভাবলো- নূর তো এমন ছিলো না!তাহলে কি এমন […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_আঠেরো

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_আঠেরো #তারা ইসলাম আমার দিকে রাগি চোখে তাকিয়ে আছেন রুদ্র।ভয়ে আমি থরথর করে কাঁপছি।আমি যতই সাহস দেখায় না কেন এই মানুষটার সামনে আমি ভেজা বেড়াল হয়ে যায়। “আমি তখন ইটের সাথে পা বেজে পরে যেতে নিলে রুদ্র আমাকে ধরে ফেলেন।আর যখন আমি উনার দিকে তাকালাম তখন উনি চমকে উঠলেন!সাথে আমিও চমকে উঠলাম।মনে মনে ভাবলাম- […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_সতেরো

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_সতেরো #তারা ইসলাম সকালে আমার ঘুম ভাঙ্গলো পাখির কিচিরমিচির শব্দে।আমার বিছানার একটু পাশেই একটা জানালা যেটা দিয়ে হালকা হালকা রোদ ও এসে পরছে আমার চোখে মুখে।সেদিকে তাকিয়ে আমি উঠে বসলাম।ফোন হাতে নিতেই দেখলাম সকাল সাত’টা বাজে।পেটে প্রচুর খিদা গতরাতেও কিছু খাওয়া হয়’নি।এখানে তো আমার কেউ নেই যে ডেকে খাবার দিবে।কেমন জানি নিজেকে একা একা […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(বোনাস পার্ট) #পর্ব_ষোল

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(বোনাস পার্ট) পর্ব _ষোল #তারা ইসলাম সূর্যটা মাথার উপর ‘চিকচিক’করছে।গরমে ঘেমে একাকার আমি!ঘামের কারণে শরীরে লেপ্টে থাকা জামাটা ঠিক করে আশে-পাশে তাকিয়ে দেখলাম অনেক গুলা ‘অচেনা’ মুখ!যাদের এই জীবনে আগে কখনো দেখেছি বলে মনে হচ্ছে না।আমি আব্বুর দেওয়া সে এলাকার ঠিকানায় এসে পোঁছালাম মাত্র।তবে এত গুলা ‘অচেনা মানুষ দেখে ভয়ে আমার গা ছম ছম করে […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(গল্পের নতুন মোড়) পর্ব_পনেরো

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(গল্পের নতুন মোড়) পর্ব_পনেরো #তারা ইসলাম ——————————————————————– মিস্টার এ’সি’পি রুদ্র মির্জা ভালো আছো তো? “রুদ্র চোখ মুখ শক্ত করে তাকিয়ে আছে সামনে চেয়ারে বসা রেয়ান চৌধুরির দিকে। “রেয়ান বললো- আমি জানতাম না এই এলাকায় এসে এত বড় একটা সারপ্রাইজ পাবো।তবে ব্যাপারটা ভালোই হলো চেয়ারম্যানের ছেলে পুলিশ বাহ বাহ ব্যাপারটা ভাবতেই কেমন জানি একটা লাগছে বলেই […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_চৌদ্দ

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_চৌদ্দ #তারা ইসলাম ———————————————————————- রাত তখন এগারো’টার কাছাকাছি।উনি মাত্রই থানা থেকে ফিরলেন।উনি ফ্রেশ হতে গেলে আমি টেবিলে রাতের খাবার পরিবেশন করতে লাগলাম।কিছুক্ষণের মধ্যেই উনি এসে চেয়ারে বসে আমার দিকে তাকিয়ে হেসে বললেন- একা একা ভয় লাগে’নিতো? “আমি ঠোঁট ফুলিয়ে বললাম- পুলিশের বউদের ভয় থাকতে নেই। “আমার কথায় উনি শব্দ করে হেসে উঠলেন আর বললেন- […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_তেরো

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া পর্ব_তেরো #তারা ইসলাম ——————————————————————— দেখো ভালো হবে যদি তুমি রুদ্রর জীবন থেকে চলে যাও।আমি রুদ্রকে ভালোবাসি আর রুদ্রও আমাকে ভালোবাসে! “সামনে বসা অতী-সুন্দরী রমণীটার কথা শুনে মৃদু হেসে বললাম- দুঃখিত আপু!আমি না রুদ্রর জীবন থেকে যাচ্ছি”না উনি আমাকে যেতে দিবেন।তাই আমাকে অহেতুক কথা বলে কোনো লাফ আপনার হবে না। “মেয়েটা আমার কথা শুনে রেগে […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(স্পেশাল পর্ব-চার) পর্ব_বারো

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(স্পেশাল পর্ব-চার) পর্ব_বারো #তারা ইসলাম —————————————————————- রাত তখন কয়’টা বাজে জানা নেই।আমি আপাতত উনার হাতে একটা শক্ত চ*ড় খেয়ে তপদা মে’রে ফ্লোরে বসে বসে কান্না করছি।উনি আমাকে অনেক সময় ধমকালেও কখনো গায়ে হাত ধুলেন’নি!কিন্তু আজ হুট করে এভাবে চ*ড় মা’রায় আমি তাজ্জব বনে গেলাম।তারপর এক-প্রকার ফ্লোরে বসে কান্না করে দিলাম।উনি আমার পাশেই বসে নিরবতা পালন […]Read More

"অবশেষে তোমাকে পাওয়া

অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(স্পেশাল পর্ব-তিন) পর্ব_এগারো

#অবশেষে_তোমাকে_পাওয়া(স্পেশাল পর্ব-তিন) পর্ব_এগারো #তারা ইসলাম ———————————————————————— আশে-পাশে প্রচুর গাড়ি চলাচল করছে পে-পু পে-পু শব্দ করে।সব-জায়গায় যেনো মানুষের গিজগিজ।কেউ কেউ রাস্তায় দাঁড়িয়ে খাবার খাচ্ছে।আবার কেউ কেউ ব্যস্ততা নিয়ে হেটে চলছে।আবার কেউ কেউ ফোনে কথা বলছে।কিন্তু আমি আর রুদ্র রিকশায় বসে আছি।আমার ভালো লাগলেও রুদ্র চোখ মুখ শক্ত করে বসে আছেন।আমি অবশ্য সেদিকে বিশেষ পাত্তা দিলাম না।সকালেই […]Read More